মেয়েদের বাম চোখ লাফালে কি হয়

মেয়েদের বাম চোখ লাফালে কি হয় এটার সমাধান কি হবে? এটা আসলে কি কোনো ফ্যাক্ট। না এটা কি কোনো কুসংস্কার? এসব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। এর আগেও এটা নিয়ে অনেক কথাবার্তা হয়ে আসছে। আমরা অনেক মুরুব্বিদের কাছে এরকম শুনে থাকি। বা অনকে গ্রাম্য এলাকায় এসব কথা বেশি শুনা হয়৷ তারা বলে থাকে যে বাম চোখ লাফালে কি হয় যেনো বা এটির অনেক কুফল আছে তারা মনে করে। তো এর জন্য আমরা এটা নিয়ে আজ জানব।

আসলে মহিলাদের বাম চোখ লাফালে অমঙ্গল হয় বা অনেকে বলে মহিলাদের বাম চোখ লাফালে বিপদ আসে।

এই সব কথার কোনো যুক্তি আছে বলে আমার মনে হয় না।

কারণ আমি এখনো কোনো ধর্মীয় বলেন আর বৈজ্ঞানিক কোনো পদ্ধতি বা আবিস্কার বলেন এমন কোনো তথ্য পাইনি।

এখন কেন সবাই বলে এই চোখ লাফালে এটা হয় সেটা হয়?

এর কারণও আছে বেশ কয়েকটি। সেটা একটু নিচে গেলেই পড়তে পারবেন যে, কোনো এসব কথা বিশ্বাস করা হয়৷

মহিলাদের বাম চোখ লাফালে কিছুই হয় না। এটা একটি কুসংস্কার। যার কোনো ভিত্তি নেই।

মেয়েদের বাম চোখ লাফালে আসলে কিছুই হয় না। একটি একটি প্রচলিত কুসংস্কার। যদি কাকতালীয় ভাবে এটি কারো সাথে মিলে যায় তবে এখান থেকে মনে করার কিছু নাই যে আসলে বাম চোখ লাফালে কি হয় না। এটা থেকে ভাবার কিছু নাই যে চোখ লাফালে কিছু হয়।

বাম চোখের উপরের পাতা লাফালে অনেকই মনে করেন বিপদ আসবে। বা অনেকে বিপদের আসঙ্কা করে থাকেন। এই বিপদের আসঙ্কা বা বিপদ আসার কথা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বানোয়াট। এটা গ্রাম্য একটি প্রচলিত কুসংস্কার যা কিছু মূর্খ মানুষদের ধারণাতে বছরের পর বছর চলে আসছে। আপনি যদি একজন মুসলমান হয়ে থাকেন তো আজই এই ধারণা ত্যাগ করতে হবে।

বা চোখ লাফালে কি হয় মেয়েদের এটা ও অনেকেই সার্চ করে তাকেন। তো, আগের সব ফ্যাক্টের মতো এটা ও একটি কুসংকার।

এখানে একটি মজার ঘটনা বলি৷ আমি যখন এই লিখাটি লিখছিলাম তখন আমি ChatGPT কে একই প্রশ্ন করে ছিলাম।

চ্যাটজিপিট যে উওর দিলো সেটা দেখা আমি অবাকই হলাম।

আসলে অবাক হলামও না। কিঞ্চিৎ পরিমান অবাক হয়েছি।

তো চ্যাট জিপি আসাকে কি উওর দিলো?


মেয়েদের বাম চোখ লাফালে অনেক সমস্যা হতে পারে, যেমন চোখের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সমস্যা, তরলবিশেষ, চোখের কোনো অন্য সমস্যা ইত্যাদি। সঠিক চিকিৎসা না করলে এটি দৃষ্টিশক্তির মধ্যে সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করাটি উচিত।

By Chat GPT
বাম চোখ লাফালে কি হয়
মেয়েদের বাম চোখ লাফালে কি হয়

ইদানিং কালে হুমায়ূন আহমেদের ছেলে নুহাস হুমায়ূন একটি খুবই ভালো মুভি বানিয়েছেন কুসংস্কার নিয়ে।

তো এই মুভিটির প্লট টা ছিলো এমন যে, আমাদের সমাজের প্রচলিত যে কুসংস্কার আছে সে গুলোর শুরু কিভাবে হয়েছে সেটা সম্পর্কে একটি মুটামুটি ধারণা দেওয়া। আসলে আমি নিজেরও এই জিনিস গুলো বিশ্বাস করিনা।

মেয়েদের চোখ বা ছেলেদের চোখ যাই বলুন না কেন এটি একটি নিছক মিথ্যা ও বানানো কথা।

এটা হতে পারে যে কারো সাথে কাকতালীয় ভাবে হয়তো মিলে গেছে কিন্তু এটাই যে সত্যি সেটা অনেকেই ধরে নিয়েছে৷

তো, আমি অনেক ভালো ভালো স্কলারদের বক্তব্য শুনেছি যারা এই বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন।

তাদের সবারই মত ছিলো এটা একটা অবৈজ্ঞানিক ত্বত্ত বা অযাচিত কুসংস্কার আমাদের।

ওটার পক্ষে কোরআন হাদিসের কোথাও লিখা নেই।

প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক সিলেট শাখা টিকানা ও ফোন নাম্বার

মুসলিম বিয়ের কার্ডের ডিজাইন

Leave a Comment